পাঞ্জাবের নারীরা ‘সেক্স টয়’ কেনার ব্যাপারে এগিয়ে


পাঞ্জাবের  নারীরা ‘সেক্স টয়’ কেনার ব্যাপারে এগিয়ে

লন্ডন টাইমস নিউজ । ১০ আগস্টঃযৌনতৃপ্তি মনে। কোনও কারণে কিন্তু সঙ্গী নেই। তাহলে উপায়। স্বমেহন! না তা কেন? প্রযুক্তি এখন এতটাই উন্নত যে বাজারে হরদম বিকোচ্ছে ‘সেক্স টয়’। কিন্তু সমাজে যে এখনও সেক্স বা যৌনতা নিয়ে খোলামেলা আলোচনা করা যায় না। দোকানে গিয়ে প্রকাশ্যে কেনাও সম্ভব নয়? অতএব উপায়! চিন্তা নেই হাতের কাছে এখন অনলাইন অনেক সংস্থাই রয়েছে। তাই বাড়িতে বসেই অর্ডার, তারপর নির্দিষ্ট দিনেই চলে এল সেই ‘টয়’। সম্প্রতি এক সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, ভারতেও বেড়ে চলেছে সেক্স-টয়ের চাহিদা। মহিলারাও পিছিয়ে নেই। সম্প্রতি অনলাইনে কেনাকাটা করা গ্রাহকদের মধ্যে একটি এক সমীক্ষা চালিয়ে দেখা গিয়েছে, যেখানে ৬২ শতাংশ পুরুষ অনলাইনে সেক্স-টয় অর্ডার করছেন, সেখানে ৩৮ শতাংশ মহিলাও রয়েছে। আর ভারতের বিভিন্ন রাজ্যের মধ্যে পাঞ্জাবের মহিলারাই এক্ষেত্রে এগিয়ে।

মোট ৮০ হাজার নারী-পুরুষের মধ্যে এই সমীক্ষা করা হয়েছে। দেখা গিয়েছে, এর মধ্যে ৬২ শতাংশ পুরুষ আর ৩৮ শতাংশ মহিলা। রিপোর্ট অনুযায়ী, যৌনতার ব্যাপারে সক্রিয় দেশগুলির তালিকায় ভারত ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে। তবে ‘সেক্স টয়’ কেনার ব্যাপারে এখনও অনেক পিছিয়ে। অবশ্য ধীরে ধীরে সেটার জনপ্রিয়তা বেড়ে চলেছে। সমীক্ষায় বলা হয়েছে, ‘দেশের অন্যান্য অংশের মতো পাঞ্জাবের মহিলার ব্যক্তিগত ম্যাসাজের উপর কম ভরসা করেন। বিভিন্ন ধরনের তেল, সেক্স টয় তাঁদের কাছে বেশি গ্রহণযোগ্য।’ তবে যৌনতার ব্যাপারে গুজরাটিরাও কিন্তু পিছিয়ে নেই। কারণ, নবরাত্রির সময়েই বিভিন্ন ধরনের যৌন উত্তেজক যন্ত্র, সেক্স টয় বিক্রির পরিমাণ বেড়ে যায়। উত্তরপ্রদেশের বাসিন্দারা আবার যৌন উত্তেজকপূর্ণ তেলের ব্যবহার বেশি করেন। এর পাশাপাশি অসমও পিছিয়ে নেই বিডিএসএম-এর জন্য দ্রব্য কেনায়।

গত কয়েকবছরে ভারতীয় সমাজব্যবস্থায় এসেছে আধুনিকতার ছোঁয়া। যে সমস্ত জিনিস নিয়ে আগেকার দিনে সমাজে নানান রকম বিধিনিষেধের মুখে পড়তে হত, তা এখন অনেকটাই কমে এসেছে। বিশেষ করে মহিলাদের ক্ষেত্রে। কিন্তু এখন আর মহিলাদের পার্টিতে যাওয়া, বেশি রাতে বাইরে থাকা কিংবা সিগারেট-মদ্যপান করায় ভ্রু কুঁচকানো মানুষের পরিমাণ অনেকটাই কমে গিয়েছে। গ্রামাঞ্চলে খুব একটা দেখা না গেলেও, শহরাঞ্চলে আজ পুরুষদের সমান অধিকারই পান মহিলারাও। তবে এখনও যে দিকটি সমাজে নারী-পুরুষ উভয়েরই ইতস্ততবোধ রয়েছে, সেটা হল যৌনতা। আধুনিক যুগে এসেও খোলামেলা যৌনতা নিয়ে আলোচনা করতে চান না অনেকেই। তবে যৌনতার ব্যাপারে গোটা বিশ্ব অনেকটাই এগিয়ে গিয়েছে। যৌনতৃপ্তি মেটাতে বাজারে এসেছে ‘সেক্স টয়’-এর মতো দ্রব্য। ভারতের মহিলাদের কাছে কতটা গ্রহণযোগ্য সেটা জানতেই করা হয়েছিল এই সমীক্ষা।

আমাদের ইউটিউব ভিডিও

gif

সৈয়দ শাহ সেলিম আহমেদ’s blog

Adnnn ................................................................................. Adnnn

Beautiful Bangladesh

Ad Space

............................................................... Aaadadddd222 ............................................................... 5436 ............................................................... addtext_com ............................................................... Citygate-Advert ............................................................... pco_addv ............................................................... quick_Cover_add ............................................................... liberty_logo ............................................................... ad ............................................................... addtext_com_MjA1NzQ5MTY0ODcx ............................................................... 598689
[category_posts category="জাতীয়"]

সংবাদ আর্কাইভ

Ad11 ............................................................... Ad2222 ............................................................... Add444 copy

related stories


Skip to toolbar