লন্ডন টাইমস নিউজ এক্সক্লূসিভ


হ্যাপি বার্থডে কাজলঃ বলিউড নায়িকা কাজলের সাক্ষাতকার


হ্যাপি বার্থডে কাজলঃ বলিউড নায়িকা কাজলের সাক্ষাতকার

আজ ৪৩ বছর পূর্ণ করলেন কাজল। আর ইন্ডাস্ট্রিতে তাঁর ২৫ বছর পূর্ণ হল। ফিল্মি দুনিয়ার ২৫টি বছর একবার পরখ করে দেখলেন তিনি জন্মদিনে। জানালেন নিজের জীবনের নানা অজানা কথা।

ইন্ডাস্ট্রিতে সিলভার জুবিলি পার করেও কাজলের ঝুলিতে ছবির সংখ্যা মাত্র ৩০। বিয়ের পরে লম্বা ব্রেক, সন্তান, সংসার এইসবের চাপে পড়ে বহু ছবি রিফিউজ করেছেন। তাঁকে এনিয়ে প্রশ্ন করলে অবশ্য বলবেন, তিনি কোয়ালিটিতে বিশ্বাসী, কোয়ান্টিটিতে নয়। তারপর হেসে আবারও বলবেন, ‘তাছাড়া আমি বড্ড অলস। সারা বছর খাটাখাটুনি ভালোলাগে না। তাই…’ তাঁর কথায়, ‘ছবি রিফিউজ করার পিছনে অবশ্যই কারণ ছিল। কখনও গল্প ভালোলাগেনি, কখনও বা ডেট ম্যাচ করেনি।’ কিন্তু কোন কোন ছবি তিনি ফিরিয়েছেন হেলায়? প্রশ্ন করলে লাজুক মুখে কাজল বললেন, ‘সে তালিকা শুনলে অবাক হবেন। সব ছবিই ব্লকবাস্টার, সুপারডুপার হিট।’

 

 

দিল তো পাগল হ্যায়: চরিত্রটা ম্যাড়ম্যাড়ে
১৯৯৭ সাল। কিং খানের সঙ্গে দুই নায়িকা মাধুরী দীক্ষিত আর করিশমা কাপুর। ছবির নাম দিল তো পাগল হ্যায়। ত্রিকোণ প্রেম। করিশমা কাপুরের রোলটা প্রথমে অফার করা হয়েছিল কাজলকে। কিন্তু তিনি রাজি হলেন না। বললেন করিশমার চরিত্রে নাকি কোনও শেডস নেই। অমন রোলে অভিনয়ের ভালো সুযোগ নেই। তাই সেই রোল চাই না। কাজলের কথায়, ‘আমার সঙ্গে শাহরুখের তখন সিজলিং কেমিস্ট্রি। দিল তো পাগল হ্যায় ছবিতে মাধুরীর রোলটাই আমার প্রাপ্য ছিল। আমি আবার সেকেন্ড বেস্ট পছন্দ করি না।’ যাই হোক, দিল তো পাগল হ্যায় কাজলকে ছাড়াই হিট করল।

 

 

দিল সে: নেগেটিভ মনে হয়েছিল
ঠিক পরের বছর, ১৯৯৮ সাল। আবারও এস আর কে-র বিপরীতে ছবি। নাম দিল সে। নায়িকার চরিত্রটাই অফার করা হয়েছিল কাজলকে। কিন্তু নাঃ, তাতেও মত দিলেন না। বললেন নেগেটিভ রোল নাকি কেরিয়ারের পক্ষে খারাপ। আশ্চর্য ব্যাপার, ছবিটা তো হিট করলই, মণীষা কৈরালার অভিনয় ও চরিত্র নিয়ে আলোচনাও হল। কাজলকে এই বিষয়ে প্রশ্ন করলেও তিনি কিন্তু নির্লিপ্ত। বললেন, সেই সময় আমার নিজের সিদ্ধান্তটাই সঠিক মনে হয়েছিল। কেরিয়ারের লম্বা সফরে টুকটাক ভুল তো হতেই পারে।’

 

মহব্বতেঁ: ভূতেরও প্রেমকাহিনি!
২০০০ সালের আবারও কিং খানের বিপরীতে রোল। ছবির নাম মহব্বতেঁ। শুধু তাই নয়, ছবিতে আরও আছেন বিগ বি। কাজল যে এমন ছবিও ফেরাবেন তা পরিচালক, প্রযোজক কেউই ভাবতে পারেননি। তবু ছবিটি রিফিউজ করলেন তিনি। কেন? কাজলের কথায়, ‘গল্পটা শুনে মনে হয়েছিল জমল না। বাচ্চাগুলো বুঝি লাইমলাইট কেড়ে নিয়ে চলে যাবে। আর আমি ভূতের চরিত্রে পিছিয়ে পড়ব। তাই না করে দিলাম। দর্শকের যে এমন অদ্ভুত পছন্দ হবে তা কে জানত? যাই হোক আমি না করলেও অ্যাশ ছবিটা ভালোই উৎরে দিয়েছিল। শাহরুখ দারুণ রোম্যান্টিক অভিনয় করল। সব মিলিয়ে মহব্বতেঁ হিট। তাই বলে আমার এই নিয়ে কোনও খারাপ লাগা নেই। অনুশোচনার তো প্রশ্নই ওঠে না।’

 

 

চলতে চলতে: নিজেকে মেলাতে পারিনি
চলতে চলতে ছবির বিষয়টাই ভালোলাগেনি কাজলের। বললেন সেই সময় সারোগেসি বিষয়টা বড্ড নতুন। তাই ২০০৩ সালে ছবিটা পেয়েও ফিরিয়ে দিয়েছিলেন। তাছাড়া ছবিতে দু’জন নায়িকা। দু’জনেরই সমান গুরুত্ব। তবু কাজলের মনে হয়েছিল প্রীতি জিন্টার চরিত্রটা দর্শকের মন জয় করবে সহজে। তাই রানি মুখোপাধ্যায়ের চরিত্রটা পেয়ে তা ফিরিয়ে দিয়েছিলেন কাজল। এখানেও শেষ নয়, চলতে চলতে-র গল্পের সঙ্গে নিজেকে মেলাতে পারেননি তিনি। বললেন, ‘সারোগেসির কনসেপ্টটাই মন থেকে মেনে নিতে পারিনি। ফলে সেই চরিত্র করাটা সেই সময় খুবই কঠিন মনে হয়েছিল।’ চলতে চলতে হিটের পরে রানি মুখোপাধ্যায়ের কেরিয়ার গ্রাফ অনেকটাই ঊর্ধ্বমুখী হয়ে যায়। এবিষয়ে কাজলকে প্রশ্ন করলে তিনি কোনও মন্তব্য করেননি।

 

বীর জারা: গুরুত্বহীন চরিত্র
বীর জারা ছবিটি মুক্তি পেয়েছিল ২০০৪ সালে। যশ চোপড়া ব্যানার। ছবিটায় উকিলের চরিত্রে অভিনয় করার প্রস্তাব পান কাজল। গল্পটাও শুনতে চাননি পুরোপুরি। তার আগেই অফার ফিরিয়ে দিয়েছিলেন নায়িকা। বললেন, ‘আরে দূর। ছবিতে নায়িকার রোল পেলে তাও বা হত, তা নয় পার্শ্বচরিত্র! এখনও এত খারাপ অবস্থা হয়নি যে যেমন তেমন রোলে অভিনয় করব।’ তবু ছবিটা তো সুপারহিট। ‘হলেই বা,’ বললেন কাজল, ‘যে কোনও রোল আমি করতে পারি না। আর ছবিটা দেখার পর তো সিদ্ধান্তটার তারিফ করেছিলাম মনে মনে। আরে কোর্ট সিন যেখানে রানির তবু বা একটু অভিনয়ের সুযোগ ছিল, সেখানেই পরিচালক গান বসিয়ে দিলেন! কাদের মুখে না প্রীতি আর শাহরুখের। এত দুর্বল প্লট আমর সহ্য হয় না।’

 

কভি আলবিদা না কহেনা: শেষই হতে চায় না
গল্পটা শেষ হচ্ছে না বলেও ছবির অফার ফিরিয়ে দিয়েছেন কাজল। তাঁর কথায়, ‘গল্প টানটান না হলে ছবি চলে না। হিট করলেও সেটা তাৎক্ষণিক। এইসব গল্প কেউ মনে রাখে না। তাই কভি আলবিদা না কহেনা-র অফার পেয়েও ছেড়ে দিলাম। পরে মনে হয়েছিল ছবিটা চলবে। তাই একটা ক্যামিও রোল করেছিলাম। এই ছবিটা ছেড়ে দিয়েছি শুনে অজয় অবাক হয়েছিল, কিন্তু কিছু বলেনি। তেড়ে ফুড়ে উঠেছিল ছবির নায়ক। শাহরুখ ভাবতেই পারেনি ওর বিপরীতে এমন একটা রোল আমি করব না। কেন রিফিউজ করলাম? জানি না। বোধহয় মনে হয়েছিল রানির চেয়ে প্রীতির রোলের সম্ভাবনা বেশি। বা হয়তো অভিষেক বচ্চনের সঙ্গে নিজেকে মানাবে কি না বুঝে উঠতে পারিনি। যাই হোক কভি আলবিদা না কহেনা না করার সিদ্ধান্তটা ঠিক ছিল না।’
থ্রি ইডিয়টস: ডেট মিলল না

 

 

২০০৯ সালে চেতন ভগতের উপন্যাস অবলম্বনে থ্রি ইডিয়টস ছবিটি বানানো হয়। ছবিতে নায়িকার চরিত্রটা প্রথম পেয়েছিলেন কাজল। এই ছবিটি কিন্তু ইচ্ছা থাকা সত্ত্বেও করা হয়ে ওঠেনি তাঁর। বললেন, ‘ডেট ম্যাচ করেনি। নাহলে গল্পটা আমার দারুণ লেগেছিল। এমনিও চেতন ভগত আমার ভালোই লাগে। খুব ইজি রিডিং। গল্পে একটা টানও ছিল। সব মিলিয়ে ছবিটা একরকম করব বলেই ঠিক করে ফেলেছিলাম। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ডেট ম্যাচ করাতে পারলাম না। ব্যস, রোলটা ফসকে গেল। থ্রি ইডিয়টস-এর সাফল্যের কথা ভাবলে এখনও মন খারাপ হয়ে যায়।’

 

 

এতগুলো ব্লকবাস্টার রিফিউজ করায় পারিবারিক কোনও বক্তব্য? কাজল বললেন, ‘বিয়ের পর যখন অভিনয় থেকে সাময়িক বিরতি নিয়েছিলাম তখন অজয় তা নিয়ে আপত্তি করেনি। কিন্তু ইন্ডাস্ট্রিতে ফেরার পর যখন একের পর এক ছবি রিফিউজ করেছি তখন তা নিয়ে ও আমায় অনেক সময়ই বোঝানোর চেষ্টা করেছে। বকাবকিও করেছে। এখনও করে। ওর বক্তব্য আমার মতো সরল সোজা পথে এখন আর কেউ চলে না। এতে খামোখা লোকের সঙ্গে সম্পর্ক খারাপ হয়, অপ্রিয় হতে হয়।’ তাই বলে নিজেকে বদলানোর সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন নাকি কাজল এই জন্মদিনে? কখনওই নয়। বললেন তিনি। তাঁর মতে, ‘জীবনের অর্ধেক পথ পেরিয়ে এসে আর নিজেকে বদলানো সম্ভব নয়। এই বেশ ভালো আছি।’

আমাদের ইউটিউব ভিডিও

gif

সৈয়দ শাহ সেলিম আহমেদ’s blog

Adnnn ................................................................................. Adnnn

Beautiful Bangladesh

Ad Space

............................................................... Aaadadddd222 ............................................................... 5436 ............................................................... addtext_com ............................................................... Citygate-Advert ............................................................... pco_addv ............................................................... quick_Cover_add ............................................................... liberty_logo ............................................................... ad ............................................................... addtext_com_MjA1NzQ5MTY0ODcx ............................................................... 598689
[category_posts category="জাতীয়"]

সংবাদ আর্কাইভ

Ad11 ............................................................... Ad2222 ............................................................... Add444 copy

related stories


Skip to toolbar