কোন লক্ষণগুলি দেখে বুঝবেন অবসাদে ভুগছেন? বিশেষজ্ঞদের মত

প্রকাশিত: ১১:৫৩ অপরাহ্ণ, জুন ১৬, ২০২০

কোন লক্ষণগুলি দেখে বুঝবেন অবসাদে ভুগছেন? বিশেষজ্ঞদের মত

বেগম ডিজিটাল ডেস্ক।মাত্র ৩৪ বছর বয়সে সুশান্ত সিং রাজপুতের (Sushant Singh Rajput) চলে যাওয়াটা গোটা দেশকে নাড়িয়ে দিয়েছে। অভিনেতার আত্মঘাতী হওয়ার কারণ হিসেবে উঠে এসেছে অবসাদ। এই একটি শব্দের মধ্যে লুকিয়ে হাজারো অনুভুতি। যা একজন মানুষকে মৃত্যুর দিকেও ঠেলে দিতে পারে। যা কোনওভাবেই কাম্য নয়। কীভাবে বুঝবেন সব বিষয়ে অতিরিক্ত দুশ্চিন্তা করছেন? অবসাদ ধীরে ধীরে গ্রাস করছে আপনাকে? এই পরিস্থিতি থেকে বেরিয়ে আসার উপায়ই বা কী? চলুন জেনে নেওয়া যাক বিশেষজ্ঞদের মতামত।

মন খারাপ হওয়া, কোনও বিষয়ে মনে আঘাত লাগা, মন ভাঙা কিংবা একাকীত্ব- সকলের জীবনেই কম-বেশি এমন মুহূর্তে আসে। কেউ পরিস্থিতি সামলে ঘুরে দাঁড়ান, কেউ তলিয়ে যান অবসাদের (Depression) অন্ধকারে। আর সেখান থেকেই আসে আত্মহননের প্রবণতা। তাই অন্যান্য রোগের মতো এরও চিকিৎসা প্রয়োজন। তবে এর প্রাথমিক লক্ষণগুলো আপনাকেই বুঝতে হবে।

  • কোনও বিষয়ে আশা হারিয়ে ফেলবে কিংবা ভীষণ অসহায় বোধ করলে বুঝবেন অতিরিক্ত দুশ্চিন্তা থেকেই এমনটা হচ্ছে।
  • অবসাদগ্রস্থ হলে দিশেহারা হয়ে কাঁদতে ইচ্ছা করে।
  • অকারণে মেজাজ হারাতে পারেন অথবা বিরক্তি আসে।
  • দৈনন্দিন কাজে আগ্রহ হারিয়ে ফেলতে পারেন।
  • কোনও সিদ্ধান্ত নিতে সমস্যা মনে হতে পারে। কোনও কাজে মনোনিবেশ করা কঠিন হয়ে পড়ে।
  • বিভিন্ন কারণে রাতে ঘুম আসতে চায় না।
  • মাথা, ঘাড়, পেট, পেশী-সহ দেহের নানা অংশ অসহনীয় যন্ত্রণা হতে পারে।
  • খিদে না পাওয়া বা অতিরিক্ত খাওয়ার জন্য শরীর অসুস্থও বোধ করতে পারে।
  • খাওয়া হজম করতেও সমস্যা দেখা যায়।
  • দিনের পর দিন মন খারাপ থাকা। দুশ্চিন্তা অনুভব করা।
  • সর্বোচ্চ আত্মঘাতী হওয়ার ভাবনা মাথায় ঘুরপাক খাওয়া।

মনের এই ‘অসুখ’কে বাড়তে দেবেন না। এধরনের লক্ষণ খেয়াল করলেই বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন। কারণ এর থেকে মুক্তি পাওয়ার শ্রেষ্ঠ উপায় কথা বলা। অন্যের কাছে নিজেকে ব্যক্ত করা। চিকিৎসকের সঙ্গে আলোচনা করলে নিশ্চয়ই মুক্তির পথ বেরিয়ে আসবে। সুন্দর পৃথিবীর খোলা হাওয়ায় বাঁচার ফের একাট কারণ খুঁজে পাবেন।