প্রথম বাংলাদেশি-ডব্লিইএইচও’র টিআইএমবি বোর্ড সদস্য হলেন সেজুঁতি

প্রকাশিত: ৮:১২ অপরাহ্ণ, জুলাই ১০, ২০২০

প্রথম বাংলাদেশি-ডব্লিইএইচও’র টিআইএমবি বোর্ড সদস্য হলেন সেজুঁতি

বেগম টুয়েন্টিফোর।প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে দেশের বেসরকারি প্রতিষ্ঠান চাইল্ড হেলথ রিসার্চ ফাউন্ডেশনের (সিএইচআরএফ) অণুজীববিজ্ঞানী ডা. সেঁজুতি সাহা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) দ্য পোলিও ট্রানজিশন ইন্ডিপেন্ডেন্ট মনিটরিং বোর্ডে (টিআইএমবি) নিয়োগ পেয়েছেন। এটি মূলত বিশ্বব্যাপী পোলিওর বিস্তার নিয়ে কাজ করে।

ডা. সেঁজুতি সাহা বোর্ডের অন্যান্য সদস্যদের সঙ্গে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে মহাপরিচালক পর্যায়ে পোলিও সংক্রমণ প্রক্রিয়াটির অগ্রগতির বিষয়ে পরামর্শ দেবেন। চাইল্ড হেলথ রিসার্চ ফাউন্ডেশনের (সিএইচআরএফ) ওয়েবসাইটে এক বিবৃতি দিয়ে সেঁজুতি সাহার নিয়োগের বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।এই প্রক্রিয়ায় মূলত বিশ্বব্যাপী দেশগুলো কীভাবে জনস্বাস্থ্যের অবকাঠামো বজায় রাখবে—বিশেষত প্রয়োজনীয় টিকাদান, বৃহত্তর সংক্রামক রোগের নজরদারি, জরুরি প্রতিক্রিয়ার বিষয়গুলো নিয়ে কাজ করে। ২০১৮ সালের মে মাসে বিশ্ব স্বাস্থ্য পরিষদের অনুমোদনের পর পোলিও সংক্রমণ পরিস্থিতি নিয়ে কাজ করছে ডব্লিউএইচও।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার টিআইএমবি বোর্ডে সভাপতি হিসেবে রয়েছেন যুক্তরাজ্যের সাবেক প্রধান চিকিৎসা কর্মকর্তা স্যার লিয়াম ডোনাল্ডসন। তিনি একইসঙ্গে লন্ডন স্কুল অব হাইজিন অ্যান্ড ট্রপিক্যাল মেডিসিনের পাবলিক হেলথ বিভাগের অধ্যাপক।

এ বছর তিনজনকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। ডা. সেঁজুতি সাহা ছাড়াও সম্প্রতি নিয়োগ পাওয়া বাকি দুজন বোর্ড সদস্য হলেন যুক্তরাষ্ট্রের নর্থ ক্যারোলিনা বিশ্ববিদ্যালয়ের পাবলিক হেলথ বিভাগের অধ্যাপক শেইলা লেথারম্যান এবং নাইজেরিয়ার প্রখ্যাত চিকিৎসক ডা. লোলা ডেয়ার। ত্রিশ বছর ধরে তিনি স্বাস্থ্যখাতের নানা পদে যুক্ত।

ডা. সেঁজুতি সাহার বাবা বেসরকারি প্রতিষ্ঠান চাইল্ড হেলথ রিসার্চ ফাউন্ডেশন নির্বাহী পরিচালক ও ঢাকা শিশু হাসপাতালের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের অধ্যাপক সমীর সাহা। গত মে মাসে বাবার সঙ্গে যৌথভাবে দেশে প্রথমবারের মতো করোনাভাইরাসের জিন–নকশা উন্মোচন করেছেন সেঁজুতি সাহা।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

আর্কাইভ

October 2020
M T W T F S S
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
262728293031