দেশের প্রথম নারী পিপির মৃত্যু

প্রকাশিত: ২:১২ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৫, ২০২০

দেশের প্রথম নারী পিপির মৃত্যু

বেগম কুড়িগ্রাম।বাংলাদেশের প্রথম নারী পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) ও কুড়িগ্রাম জেলার প্রথম নারী আইনজীবী অ্যাডভোকেট রেহানা খানম বিউটি মারা গেছেন। তিনি সোমবার সন্ধ্যায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন।

মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬২ বছর। তিনি অ্যাডভোকেট স্বামী, দুই মেয়ে ও এক চিকিৎসক ছেলেসহ অনেক গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। রাত ১টায় মরহুমের জানাজা শেষে শহরের ব্যাপারীপাড়ার পারিবারিক কবরস্থানে তার লাশ দাফন করা হয়।

রেহানা খানম বিউটি জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির অঙ্গসংগঠন কুড়িগ্রাম জেলা মহিলা দলের আহ্বায়ক ছিলেন। তিনি কুড়িগ্রাম আইন মহাবিদ্যালয়ের একজন সিনিয়র শিক্ষকও ছিলেন। এছাড়াও তিনি বিভিন্ন সামাজিক ও পেশাজীবী সংগঠনের নেতৃত্ব দিয়েছেন।

কুড়িগ্রাম জেলার পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) এসএম আব্রাহাম লিংকন জানান, অ্যাডভোকেট রেহানা খানম বিউটি হৃদরোগ, উচ্চ রক্তচাপ ও ফাইলেরিয়াসহ নানা রোগে দীর্ঘদিন যাবত অসুস্থতায় ভুগছিলেন। সোমবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে রংপুর মেডিকেল কলেজের মেডিসিন বিভাগে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

তিনি আরও বলেন, অ্যাডভোকেট রেহানা কুড়িগ্রামে প্রথম নারী আইনজীবী এবং বাংলাদেশের প্রথম নারী পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) ছিলেন। তিনি ১৯৮৫ সালে আইন পেশায় সংযুক্ত হন। তিনি কুড়িগ্রাম জেলায় প্রথম নারী আইনজীবী হিসেবে তৎকালীন বিএনপির আমলে ১৯৯২ সালে বিএনপির রাজনীতিতে থেকে বাংলাদেশের প্রথম নারী পাবলিক প্রসিকিউটর নিযুক্ত হন। করোনা পরিস্থিতি এবং পারিবারিক সিদ্ধান্তে গভীর রাতেই তার দাফন সম্পন্ন হয়।